Home / অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট / অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং
Amazon Affiliate Marketing

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

সবাইকে শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন। আশাকরি সবাই ভালো আছেন। বর্তমান সময়ে “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” এবং “নিশ সাইট” এই শব্দগুলো শোনেননি এমন মানুষ হয়তো খুজে পাওয়া যাবে না। আর আপনি যেহেতু আমাকে ফলো করছেন এবং আমার ব্লগ পড়ছেন তারমানে  আমি ধরে নিতে পারি এই বাপারে আপনার কিছুটা হলেও ধারনা আছে। আপনি যদি  অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে আগ্রহী হয়ে থাকেন কিন্তু এ ব্যাপারে আপনার একদম বিস্তারিত ধারনা না থাকে তবে এই আর্টিকেল টি আপনার জন্য। চলুন শুরু করা যাক।

​Disclaimer – এটি একটি ইনফরমেটিভ এবং প্রোমোশনাল আর্টিকেল, অর্থাৎ এখানে আমি অ্যামাজন এফিলিয়েশন এর আদ্যোপান্ত জানানোর পাশাপাশি আমার অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর কোর্স সম্পর্কে বলবো, আপনি যদি  অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আগ্রহী থাকেন এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে “প্যাসিভ ইনকাম” করতে চান তবে আমার কোর্সটি করতে পারেন। কোর্স আউটলাইন,  ফি, এবং আরো বিস্তারিত এই আর্টিকেলের শেষে আলোচনা করা হয়েছে।

​অনলাইনে আয় নিয়ে আমাদের অনেকেরই আগ্রহ আছে। বিশেষ করে তরুন-তরুনী যারা ছাত্র কিংবা চাকরিজীবি যারা কাজের পাশাপাশি এক্সট্রা আরেকটা ইনকামের পথ হিসেবে অনলাইন থেকে আয় করতে চায়। ঠিক তাদের জন্যই অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং যার মাধ্যমে করে আপনি মাসে ৩০০-৫০০ ডলার পর্যন্ত সহজেই ইনকাম করতে পারেন।

​অ্যামাজন (Amazon) কি?

​অ্যামাজন কে কে না চেনে? তারপর ও যারা জানেন না তাদের জন্য বলছি, অ্যামাজন হলো পৃথিবীর সবথেকে বড় ই-কমার্স ওয়েবসাইট। ১৯৯৪ সালের জুলাই এর ৪ তারিখ আমেরিকার ওয়াশিংটনে এ্যামাজন ​যাত্রা শুরু করে। ​আমাজন এর প্রতিষ্ঠাতার নাম জেফ বেজোস, শুরুতে অ্যামাজন তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে শুধু মাত্র বই বিক্রি করলেও এখন নিত্য প্রয়োজনীয় সব ধরনের পন্যই বিক্রি করে থাকে। কিন্ত আপনি জানেন কি প্রতিদিন কত পন্য বিক্রি হয়?

​২ কোটির ও বেশি!!! পৃথিবীর সবথেকে বড় ইকমার্স ওয়েবসাইট বলে কথা।

​অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং (Amazon Affiliate)  কি?

​খুব সহজ ভাষায় বলতে গেলে অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এমন একটি প্রসেস যেখানে আপনি অ্যামাজন এর এক বা একাধিক পন্য অনলাইনে আপনার ওয়েবসাইটে প্রোমোট করবেন। আপনার করা প্রমোশন থেকে ওই পন্যটি বিক্রি হলে আপনি সেখান থেকে একট কমিশন পাবেন। নিচের ছবিটা দেখলে এফিলিয়েট মার্কেটিং কি এ ব্যাপারে পরিষ্কার ধারনা পাবেন।

​ধরা যাক, অ্যামাজনে একটি টিভি সেল হচ্ছে ৫ হাজার ডলারে, এখন আপনার একটা ওয়েবসাইট আছে, যেখানে আপনি জানালেন যে এই টিভিটা বেশ ভালো। ওয়েবসাইটে ওই টিভি সম্পর্কে বিস্তারিত আপনি দিয়ে দিলেন। এরপর আপনার ওয়েবসাইট থেকে কোনো কেউ ​অ্যামাজনে গিয়ে যদি ওই টিভিটা কেনে তাহলে আপনি সেখান থেকে একটা এমাউন্ট কমিশন পাবেন। ধরাযাক সেটা ৪% অর্থাৎ ৫হাজার ডলারের একটা প্রোডাক্ট কেউ কিনলে সেখান থেকে আপনি ২০০ডলার পাবেন।

​অ্যামাজন নিস সাইট কি?

​নিস (Niche) শব্দের বাংলা অর্থ হলো কোনো একটি ​নির্দিষ্ট বিষয়। আপনি যখন অ্যামাজন নিস সাইট করবেন, তখন যেকোন একটা ​নির্দিষ্ট নিস বা বিষয়ের উপর ওয়েবসাইট বানাতে হবে।  এরপর আপনার কাজ হবে আপনার তৈরি করা ওয়েবসাইটে ভিজিটর পাঠানোর ব্যাবস্থা করা। নিস সাইট বিভিন্ন ধরনের হতে পারে, ট্রাভেল, টেক, হেলথ এগুলো ব্রড নিশ হিসেবে পরিচিত।  আবার ট্রাভেলের মধ্যে হাইকিং, ক্যাম্পিং…. টেক এর মধ্যে মোবাইল, ক্যামেরা, হেডফোন এরকম সাব নিশ হতে পারে।

​আবার কিছু ওয়েবসাইট হয় মাল্টি নিসের। এই ধরনের ওয়েবসাইটে কিচেন, ট্রাভেল, হোমইম্প্রুভমেন্ট সহ সব ধরনের ক্যাটাগরির প্রোডাক্ট ই রিভিউ করা হয়।  তবে অতি সম্প্রতি গুগলে (Expertise + Authority + Trustworthiness) EAT আপডেট  এর পর অণেকেই মাল্টি নিশে সাইট করা থেকে বিরত থাকতে বলছেন।

​কয়েকটি নিশ সাইটের উদাহরন –

  • 10beasts.com - বিখ্যাত অ্যামাজন এফিলিয়েট টেক নিস ওয়েবসাইট
  • tripsavvy.com - ট্রাভেল নিশ ওয়েবসাইট। 
  • toptenreviews.com - মাল্টি নিশ সাইট

​প্যাসিভ ইনকাম কি?

অনলাইন মার্কেটিং কমিউনিটিতে যারা টুকটাক বিচরন করেন তারা হয়তো “প্যাসিভ ইনকাম” টার্মটার সাথে পরিচিত। এমাজন এফিলিয়েট থেকে ইনকাম ও প্যাসিভ ইনকাম করা সম্ভব।

কিন্তু এই প্যাসিভ ইনকাম এর অর্থটা কি? প্যাসিভ ইনকাম এর অর্থ জানতে হলে আপনারকে “একটিভ ইনকাম” সম্পর্কে জানতে হবে।

​একটিভ ইনকাম

​সোজাভাবে বললে, একটিভ ইনকামের অর্থ হলো “নিদৃষ্ট সময়ে শ্রমের বিনিময়ে প্রাপ্য পারিশ্রমিক” ধরা যাক আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করেন। একটি কাজ ৩ ঘন্টায় শেষ করে আপনি ৫০০০ টাকা পারিশ্রমিক পেলেন, এটি আপনার একটিভ ইনকাম। এছাড়া আপনি আপনার অফিসে কাজ করে মাস শেষে যে পারিশ্রমিক পান সেটিও একটিভ ইনাকামের মধ্যে পড়ে। আমাদের ইনকামের বেশিরভাগই একটিভ ইনকাম

​একটিভ ইনকামের কিছু অসুবিধা

  • ​একটিভ ইনকাম ফ্লেস্কিবল না
  • পারিশ্রমিক পেতে অন্যের উপর নির্ভরশীল হতে হয়
  • ঝামেলা বাধলে, চাকরি চলে যাওয়ার সম্ভবনা
  • নিদৃষ্ট সময় (৯টা – ৫টা) কর্মক্ষেত্রে বসে থাকতে হয়।
  • একটিভ ইনকাম সীমিত এবং নিদৃষ্ট পরিমান হয়।

​প্যাসিভ ইনকাম

প্যাসিভ ইনকাম হলো এমন এক ধরনের ইনকাম ব্যাবস্থা, “যেটা করতে গেলে আপনাকে সবসময় এর সাথে লেগে থাকত হবে না”। বাস্তবিক উদাহর হিসেবে বলা যায়, আপনি একটি বাড়ি বানালেন এরপর ৫জন ভাড়াটিয়াকে বাড়ির ৫রুম ভাগ করে দিলেন। ইনকামের জন্য প্রতিমাসে ভাড়া উঠানোর বাইরে আপনাকে খুব বেশি কিছু করতে হচ্ছে না

​এটা অফলাইনে প্যাসিভ ইনকামের চমৎকার একটি উদাহরন।অনলাইনেও বিভিন্ন জনপ্রিয় প্যাসিভ ইনকামের মধ্যে জনপ্রিয় হচ্ছে এফিলিয়েট মার্কেটিং, অনলাইন কোর্স, ইবুক, স্টক ফটো ইত্যাদি। 

​প্যাসিভ ইনকামের কিছু সুবিধা

  • ​ইনকাম সোর্স তৈরি হওয়ার আগ পর্যন্ত নিদৃষ্ট সময়, মেধা, অর্থ এবং শ্রম দিতে হয়, পরবর্তীতে শুধু এটি মেইনটেইন করলেই হয়
  • সবসময় এর সাথে যুক্ত থাকতে হয় না।
  • সময় এবং অর্থের পূর্নাঙ্গ স্বাধীনতা পাওয়া যায়।
  • একটিভ ইনকামের থেকে কম কষ্ট করে বেশি উপার্যন করা যায়।
  • কারো উপর নির্ভরশীল হতে হয় না।

​আশাকরি একটিভ এবং প্যাসিভ ইনকামের ব্যাপারে আপনারা পরিষ্কার ধারনা পেয়েছেন। অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং থেকে প্রাপ্ত ইনকাম ও প্যাসিভ ইনকাম। এখানে আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন, SEO করে সাইট কে র‌্যাক করানোর পর খুব বেশি কাজ করার প্রয়োজন নেই। এরপর প্রতিমাসে যে ইনকাম টা আসবে সেটি প্যাসিভ ইনকাম। প্যাসিভ ইনকাম কথাটার শুরু কোথাথেকে হয়েছে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানা না গেলেও অনেকে ধারনা করে বিখ্যাত এফিলিয়েট মার্কেটার Pat Flynn এর স্মার্ট প্যাসিভ ইনকাম, প্যাসিভ ইনকামের জন্য বিখ্যাত ওয়েবসাইট।

​অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” কারা করতে পারবে?

এটি খুব গুরুত্বপূর্স একটি পয়েন্ট, “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” কাদের জন্য? আপনি কি এটা করতে পারবেন? এধরনের প্রশ্ন মনে আসাটা স্বাভাবিক। কারন চারিদিকে শুধু ইনকাম এর স্ক্রিনশট এর ছড়াছড়ি, যা নতুন দের বিভ্রান্ত করার জন্য যথেষ্ট।

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার গড়ার আগে আপনাকে নিশ্চিত হতে হবে আপনি সত্যিই এটা করতে চান কিনা। কারন অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এমন কোনো পদ্ধতি না যা শিখে আপনি ১ম মাস শেষেই হাজার ডলার ইনকাম করতে পারবেন। একটি একটি লম্বা প্রকৃয়া এবং কিছু ক্ষেত্রে এখানে অর্থের ও প্রয়োজন হয়। তবে ব্যাক্তিগত এক্সপার্টিজ থাকলে এই খরচ অনেকাংশেই কমিয়ে আনা সম্ভব। 

​অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং মূলত তাদের জন্য যারা অনলাইন এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর ব্যাপারে আগ্রহী। যথেষ্ট আগ্রহ, প্রচুর শেখার ইচ্ছে, এবং মোটামুটি ইংরেজী জ্ঞান থাকলে, যে কেউ বেশ ভালো ভাবে  অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে ইনকাম করতে পারেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

কি কি বিষয় জানতে হবে

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর জন্য সবথেকে গুরুত্বপূর্ন বিষটি হলো SEO। আপনার SEO সম্পর্কে অল্পবিস্তর ধারনা থাকা মানে আপনি যে কারো থেকে অর্ধেক এগিয়ে থাকলেন। আরেকটি গুরুত্বপূর্ন বিষয় হলো ইংরেজি জানা। তবে এটা মেন্ডেটরি না।ইংরেজীতে আপনি ভালো হলে, কন্টেন্ট / আর্টিকেল আউটসোর্স না করতে হলে প্রযেক্ট এর খরচ অর্ধেক কমিয়ে আনা সম্ভব।

তবে অনেকেই ইংরেজী জানা থাকলেও ব্যক্তিগত ব্যাস্ততার জন্য কন্টেন্ট বাইরে থেকে আউটসোর্স করে নেন।

​অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর জন্য SEO সম্পর্কে ধারনা ( ​Advanced SEO অনলাইন কোর্স নিয়ে, বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন) এবং মোটামুটি জ্ঞান থাকলে এখান থেকে সহজেই ৩০০-৫০০ ডলার প্রতি মাসে ইনকাম করা সম্ভব।

​যেহেতু আপনার অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর জন্য একটি ওয়েবসাইট থাকবে তাই ওয়েবসাইট ডিজাইন সম্পর্কে ধারনা থাকলে ভালো হয়। কোর্সে আউটলাইনে দেখতে পাবেন কোর্সের শুরুতে  ওয়েব ডিজাইন সম্পর্কে ৩-৪ টি ক্লাস রাখা হয়েছে। অর্থাৎ আপনি যদি নতুনও হন তারপরও খুব বেশি সমস্যা হবে না।

​কি পরিমান সময় দিতে হবে​

আর্টিকেলের শুরুতেই আমি পরিষ্কার বলে দিয়েছি যে, অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সল্প সময়ে হাজার ডলার ইনকাম করার পদ্ধতি না। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনাকে এর পিছনে লেগে থাকতে হবে। আমার মতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে একটি সাইট থেকে ৩০০-৫০০ ডলার ইনকামের জন্য প্রতিদিন ৩-৪ঘন্টা করে মিনিমাম ১ বছর সময় হাতে নিয়ে কাজে নামা উচিত।

​আমার ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতা মতে একটি ওয়েবসাইট থেকে প্রথম আর্নিং আসার জন্য ৩-৪ মাস অপেক্ষা করতে হয় (এটা কারো ক্ষেত্রে বেশি/কম হয়) এরপর এই ইনকাম কে স্কেলআপ করে ৬-৮ মাসে এটিকে ৩০০-৫০০ ডলারে নিয়ে যাওয়া সম্ভব।

অ্যামাজন কমিশন স্ট্রাকচার

​আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এমাজন এর কোনো পন্য বিক্রি হলে আপনি সেখান থেকে একটি % কমিশন পাবেন। এটাই এমাজন এফিলিয়েট মার্কেটারের ইনকাম। তবে সব পন্যের কমিশন এক না। চলুন নিচের ছবিটি দেখে নেই

এখানে প্রোডাক্ট ক্যাটাগরি অনুযায়ী কমিশন এর % দেয়া আছে

​ধরা যাক আপনি আপনার ওয়েবসাইটে সোফা, কুশন, অফিস চেয়ার সহ ফার্নিচার আইটেম প্রোমোট করেন। আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে একজন ভিজিটর গিয়ে এমাজন থেকে ২০০ ডলার মূল্যের একটি সোফা কিনেছে। তাহলে আপনি সেখান থেকে ৮% হারে ১৬ ডলার কমিশন পাবেন। বিস্তারিত আরো জানতে পারেন এখান থেকে

অ্যামাজন নিস সাইট তৈরি করতে কি প্রয়োজন হয়

  • ​সঠিক নিস রিসার্চ
  • ​কীওয়ার্ড রিসার্চ করা
  • ​ডোমেইন-হোস্টিং কেনা  
  • ​ওয়েবাসইট ডিজাইন করা
  • ​প্রোডাক্ট সিলেক্ট করা
  • ​রিভিউ/কনটেন্ট পাবলিশ করা
  • ​ওয়েবসাইট র‌্যাংক করানোর জন্য SEO করা

​একটি অ্যামাজন এফিলিয়টে নিস সাইট তৈরি করতে শুরুতেই আপনাকে একটি নিশ সিলেক্ট করতে হবে। এখানে খেয়াল রাখতে হবে নিশ টি যেনো কম্পিটিটিভ না হয়। বেবি স্ট্রলার, ফিশিং এগুলো সুপার কম্পিটিভ নিশ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। চেষ্টা করতে হবে কিছুটা আনকমন এবং কম কমপিটিশন এর নিশ খুজে বের করতে। শুরুর দিকে নিস রিসার্চেই বেশি সময় দেয়া উচিত। নিশ রিসার্চ এর সময় আমি ব্যাক্তিগত ভাবে একটি বিষয়ে প্রাধান্য দেই তা হলো,  নিশটা যেনো সিজনাল না হয়। অথ্যাৎ আপনার নিশ বা টপিক টা যদি সিজনাল হয় তাহলে আপনি বছরের  একটা নিদৃষ্ট সময়ই সাইট থেকে ভালো ইনকাম করতে পারবেন।  উদাহরনস্বরুপ বলা যেতে পারে হাইকিং নিশের কথা। এটি একটি সিজনাল নিশ, এমেরিকান রা গ্রীষ্মে হাইকিং করে। তাই শীতে এ ধরনের প্রোডাক্ট কম সেল হয়। তারপর ও যদি আপনি কনফিডেন্ট থাকেন এই সময়ের মধ্যেই আপনি সাইটের আর্নি বের করে আনতে পারবেন তাহলে কাজ করা যেতে পারে।

​নিশ সিলেক্ট করে নিয়ে ভালো কোনো কোম্পানী থেকে ডোমেইন এবং হোস্টিং নিতে হবে। এ ব্যাপারে আমার পছন্দ নেমচিপ (ডোমেইন হোস্টিং কেনার ব্যাপারে সাহায্য প্রয়োজন হলে আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন) ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনা হয়ে গেলে  যে কাজটি করতে হবে তা হলো সাইট টি ডিজাইন করা। আপনারা চাইলে থিম ফরেস্ট থেকে প্রিমিয়াম কোনো থিম কিনে নিতে পারেন। আমি আমার ওয়েবসাইটে থ্রাইভ থিম ব্যবহার করি। তবে ফ্রি থিমেও কাজ করা যায়।

​এরপর, আপনার নিশের যে প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করতে চান সেগুলো খুজে বের করে নিতে হবে।

​ঠিক তার পরেই আসবে, কীওয়ার্ড রিসার্চ, লো কম্পিটিভ কীওয়ার্ড খুজে বের করা খুব সহজ কাজ নয় এটি সত্য, তবে অসম্ভব নয়। চেষ্টা করতে হবে লো কম্পিটিটিভ এবং মোটামুটি সার্চ ভলিউম আছে এমন কীওয়ার্ড খুজে বের করার জন্য।  এ ক্ষেত্রে আপনি চাইলে এক্সপার্ট কারোর সাহায্য নিতে পারেন, বা এই পার্টটি আউট সোর্স করতে পারেন।

​পরবর্তীতে, লো/মিডিয়াম কম্পিটিটিভ কীওয়ার্ড এর উপর রিভিউ আর্টিকেল  পাবলিশ করতে হবে।

​সর্বশেষে ওয়েবসাইট টি অনপেজ এবং অফপেজ সহ ওভারঅল SEO নিয়ে কাজ করে সাইটকে র‌্যাংক করতে হবে।

আপনি যদি “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” এর বিষয়ে সিরিয়াস হয়ে থাকেন এবং এফিলিয়েট মার্কেটিং কো আপনার ক্যারিয়ার হিসেবে নেয়ার জন্য একটি সঠিক গাইডলাইন পেতে চান, তবে “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” নিয়ে আমার এডভান্স কোর্সটিতে ভর্তি হতে পারেন।

  • ​অনলাইন মার্কেটিং নিয়ে দীর্ঘ ৫ বছর ধরে অনলাইনে কাজ করছি
  • BASIS এর BITM এ SEO এবং “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” নিয়ে ৮০+ ব্যাচে  ইন্সট্রাকটর হিসেবে কাজ করেছি
  • কোর্সটি এক্সক্লুসিভ, কারন এখানে মাত্র ৫জন স্টুডেন্টের এনরোল হওয়ার সুযোগ রয়েছে।
  • প্রি রেকর্ডেড বা কোনো ধরনের ভিডিও থাকছে না, পুরোপুরি হাতে কলমে বেসিক থেকে এডভান্স লেভেল পর্যন্ত শেখানো হবে।
  • পেমেন্ট ইন্সটলমেন্ট সুবিধা। কোর্স ফি এর অর্ধেক ফি দিয়ে ভর্তির সুযোগ, বাকি অর্ধেক ফি ৭টি ক্লাস কমপ্লিট হওয়ার পর দিতে হবে।
  • সর্বশেষে, আমার একটি নিশ সাইট এর কেসস্টাডি স্টুডেন্টদের সাথে তুলে ধরবো। অর্থাৎ এই সাইট টির ডোমেইন কেনা থেকে শুরুকরে হোস্টিং, ডিজাইন, আউটরিচ, এবং ইনকাম জেনারেটের প্রতিটি ধাপ দেখাবো। যাতে করে স্টুডেন্টরা অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কোর্সের পাশাপাশি এ ব্যাপারে প্রাকটিক্যাল ধারনা পায়।

এই কোর্সটি যারা অনলাইনে আয়ের ব্যাপারে সিরিয়াস, যারা কাজের ফাকে ফ্রি সময়টুকু সঠিক ভাবে ইউটিলাইজ করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য।

​কোর্স আউটলাইন এবং কোর্স ফি সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

​অনলাইন কোর্স

​এটি এমন কোনো অনলাইন কোর্স না, যেটা করার পরের মাস থেকেই আপনি হাজার হাজার ডলার ইনকাম করতে পারবেন। এই কোর্সে “অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং” এর শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ডিটেইল গাইডলাইন দেয়া হবে। যেহেতু আমি ব্যাক্তিগতভাবে প্রত্যেক স্টুডেন্টকে এসিস্ট করবো তাই আশাকরছি কোর্স শেষে এই কোর্সের স্টুডেন্ট নিজেরাই নিশ সাইট তৈরি করতে পারবে।

6 comments

  1. Sabber Ahmad Rahiq

    মোঃ ফারুক খান,
    অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বিষয়ে লেখাটি পড়ে খুব ভালো লাগলো। বিশেষ করে প্যাসিভ ইনকাম শব্দের অর্থ বিস্তারিত ব্যাখ্যা করার বিষয়টি। কেননা এই শব্দটির সঠিক অর্থটা আমার জানা ছিল না।
    অসংখ্য ধন্যবাদ এমন একটি তথ্যসমৃদ্ধ লেখা আমাদের উপহার দেয়ার জন্য।

  2. onk upork holo amio korta chi

  3. via 1ta website a ki 3-4ta eCommerce site er sathe affiliation kora jabe

  4. মোঃ ফারুক খান, আপনার লেখাটি পড়ে খুব ভালো লাগলো। ধন্যবাদ এমন একটি তথ্য দেয়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *