অন-পেজ এসইও – মো: ফারুক খাঁন https://www.mdfarukkhan.com/bangla Wed, 22 May 2019 04:43:00 +0000 en-US hourly 1 https://wordpress.org/?v=5.2.3 https://www.mdfarukkhan.com/bangla/wp-content/uploads/2017/08/Md-faruk-khan-favicon.png অন-পেজ এসইও – মো: ফারুক খাঁন https://www.mdfarukkhan.com/bangla 32 32 On-Page SEO এর ৮ টি মারাত্মক ভুল – ওয়েবসাইট হারাচ্ছে র‌্যাংক https://www.mdfarukkhan.com/bangla/on-page-seo-mistake/ https://www.mdfarukkhan.com/bangla/on-page-seo-mistake/#comments Fri, 26 Apr 2019 09:36:13 +0000 http://www.mdfarukkhan.com/bangla/?p=755 ​On-Page SEO (অনপেজ এসইও) , অনেকেই আমরা এই বিষয়টাকে হালকা ভাবে দেখি। একটা ওয়েবসাইট যখন তৈরি করি তখন শুধু ডিজাইন কেই আমরা গুরুত্ব দেই, কিন্তু আমাদের এটা মনে রাখা উচিৎ যে ডিজাইন এর পাশাপাশি আমাকে গুগল এর ওয়েবমাস্টার রুলস/নিয়ম মেনে সাইট তৈরি করতে হবে। আর এ কারনেই বিভিন্ন সময় অনেকে আমাকে বলেন যে “আমি তো …

The post On-Page SEO এর ৮ টি মারাত্মক ভুল – ওয়েবসাইট হারাচ্ছে র‌্যাংক appeared first on মো: ফারুক খাঁন.

]]>

​On-Page SEO (অনপেজ এসইও) , অনেকেই আমরা এই বিষয়টাকে হালকা ভাবে দেখি। একটা ওয়েবসাইট যখন তৈরি করি তখন শুধু ডিজাইন কেই আমরা গুরুত্ব দেই, কিন্তু আমাদের এটা মনে রাখা উচিৎ যে ডিজাইন এর পাশাপাশি আমাকে গুগল এর ওয়েবমাস্টার রুলস/নিয়ম মেনে সাইট তৈরি করতে হবে।

আর এ কারনেই বিভিন্ন সময় অনেকে আমাকে বলেন যে “আমি তো সব ঠিকঠাক ভাবেই করছি, তারপর ও কেন আমার ওয়েবসাইট ​র‌্যাংক করছে না?” এ ধরনের সিচুয়েশনে বেশিরভাগ সময়ই আমি ওয়েবসাইট টা এনালাইসিস করার অনুরোধ পেয়ে থাকি।

সব থেকে মজার ব্যাপার হলো, সাইট এনালাইসিস করার সময় ৮০% এর ও বেশি সময় আমি দেখতে পাই যে সাইটের অনপেজ SEO ঠিক নেই। আমি এমন ও দেখেছি সাইট রেডি করা থেকে শুরু করে প্রিমিয়াম থিম, প্রিমিয়াম লোগো, এমনকি বেশ ভালো একটা এমাউন্ট ব্যাকলিংকের জন্য খরচ করলেও সাইটের মূল স্ট্রাকচার অনপেজ SEO এর দিকে খুব একটা নজর দেয়নি। এরফলে যা হওয়ার তাই হয়েছে, প্রায় ১০০০ ডলার ওয়েবসাইটের পিছনে ইনভেস্ট করার পর ও সাইট থেকে কাংখিত রেজাল্ট পাচ্ছিলেন না ওয়েবসাইটের মালিক।

তাই আজকে আমি On-Page SEO (অনপেজ এসইও) এর মারাত্মক কিছু ভুল নিয়ে কথা বলবো এবং কিভাবে এই ভুল এর সঠিক সমাধান করতে পারবেন সেই বিষয়েও ধারনা দিবো। তো চলুন শুরু করা যাক তাহলে। 

​On-Page SEO এর ৮টি মারাত্মক ভুল


​১

সঠিক পেইজ টাইটেল ব্যবহার না করা 

​একটা পেইজ এর সব থেকে গুরুত্বপূর্ন পার্ট হলো ওই পেইজ এর টাইটেল। এই টাইটেলের মাধ্যমেই সার্চ ​ইঞ্জিন পুরো কন্টেন্ট সম্পর্কে আইডিয়া নেয়, বলাযায়  অনপেজ SEO এর সবথেকে গুরুত্বপূর্ন অংশ হচ্ছে টাইটেল ট্যাগ ।

​Title Tag (টাইটেল) তৈরির সঠিক নিয়ম

  • টাইটেল ৫০-৬০ ক্যারেকটার এর মধ্যে তৈরি করতে হবে টা না হলে এলিপ্সিস (...) চলে আসবে।
  • টাইটেল এর মধ্যে অবশ্যই আপনার পেইজ এর মেইন কীওয়ার্ড থাকতে হবে।
  • অর্থবহ এবং আকর্ষণীয় টাইটেল তৈরি করতে হবে।
  • টাইটেল এর সাথে আপনার ব্রান্ড নাম রাখতে পারেন।
  • টাইটেল সেপারেটর হিসেবে হাইপেন (-) বা পাইপ (|) সাইন ব্যবহার করতে পারেন।  
ellipsis title tag

​Bad Title Tag Example

Good Title Tag

​Good Title Tag Example

​২

সঠিক পেইজ ​URL ব্যবহার না করা 

​পেইজ এর ​URL ও আপনাকে সঠিক ভাবে অপটিমাইজ করে দিতে হবে, টা না হলে আপনি ইউজার এবং সার্চ ইঞ্জিন দুদিক থেকেই ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। কারণ ​URL কে গুগল এর একটি রাঙ্কিং ​ফ্যাক্টর হিসেবে বিবেচনা করা হয়।  

বিস্তারিত জানুনঃ গুগল র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর

​​URL তৈরির সঠিক নিয়ম

  • ​​URL সবসময় ছোট হতে হবে।
  • ​​URL পেইজ এর মেইন কীওয়ার্ড ​দিয়ে করা ভাল।
  • অর্থবহ ​​URL তৈরি করতে হবে।
  • ​​URL এ সংখ্যা ব্যবহার না করা ভাল।
  • ​​URL সেপারেটর হিসেবে হাইপেন (-) সাইন ব্যবহার ​ করবেন।  
Bad URL Structure

​Bad URL Example

good url structure

​Good URL Example

​৩

​মেটা ডেসক্রিপশন ​এ গুরুত্ব না দেয়া

মেটা ডেসক্রিপশন (Meta Description) না দেয়া অনপেজ SEO এর জন্য একটি নেগেটিভ সিগন্যাল।  একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে অনলাইনে পাবলিশ হওয়া ব্লগের ২৫% এর ই মেটা ডেসক্রিপশন থাকে না। অর্থাৎ মেটা ডেসক্রিপশন দেয়াই হয় না!!!

​মেটা ডেসক্রিপশন না দিলে ​Click Through Rate (CTR) কমে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। এর পেছনে কারন হলো আপনার পোষ্ট টি কি সম্পর্কে মেটা ডেসক্রিপশন পড়ে রিডার তার সম্পর্কে একটি বিস্তারিত ধারনা পায়। তাই পোষ্ট পাবলিশ করার আগে সঠিক ভাবে মেটা ডেসক্রিপশন দেয়া উচিত।

​Meta Description তৈরির সঠিক নিয়ম

  • ​Meta Description ১৫০-১৬০ ক্যারেকটার এর মধ্যে লিখতে হবে।
  • Meta Description ​ এ মেইন কীওয়ার্ড ​রাখতে হবে।
  • অর্থবহ Meta Description তৈরি করতে হবে।
Bad Meta Description

​Bad ​Meta Description Example

Good Meta Description

​Good ​Meta Description Example

​৪

​ছবিতে ALT Text না দেয়া

​আমরা সবাই গুগল সার্চ রেজাল্ট থেকে ভিজিটর পেতে চাই। কিন্ত আপনি কি জানেন মূল সার্চ রেজাল্টের বাইরেও ইমেজ সার্চ থেকে বেশ ভালো একটা পরিমানের ভিজিটর ওয়েবসাইটে আসে। ২৬.৭৯% USA, সার্চ গুগল ইমেজ সার্চ এর মাধ্যমে হয়ে থেকে।

​এক্ষেত্রে পোষ্টে আপলোড করা ইমেজে যদি আপনি সঠিক ভাবে ALT tag না দেন, তাহলে ইমেজ সার্চে যেমন আপনার ইমেজটি সার্চ রেজাল্টের উপরের দিকে থাকবে না, ঠিক একই কারনে আপনি হারাবেন মূল্যবান কিছু ট্রাফিক। তাই কোনো ব্লগ পোষ্ট পাবলিশ করার আগে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে ছবিতে ALT tag সঠিক ভাবে (কীওয়ার্ড অপটিমাইজ করে) দেয়া হয়েছে কিনা।  

​ALT tag লেখার সঠিক নিয়ম

  • ​ALT tag সবসময় কীওয়ার্ড ফোকাস করে দিতে হবে। 
  • ​​ALT tag এ ওয়ার্ড সেপারেটর হিসেবে স্পেস ই ব্যবহার করবেন।
  • ALT tag এ কোন সাইন ব্যবহার না করা উচিত।
Image Alt Text

​Good Example of Image Alt Text

৫​

​Heading Tag সঠিক ভাবে ব্যবহার না করা

​Heading Tag সাধারণত ব্যবহার করা হয় কোন একটি লেখাকে সার্চ ইঞ্জিন এবং ভিসিটর এর গুরুত্বপূর্ণ বোঝানর জন্য। মোট ৬টি Heading Tag আছে, H1-H6

গুরুত্বের দিক থেকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয় H1 ট্যাগ কে এবং এর পর ক্রমানুসারে গুরুত্ব কমতে থাকে।

​Heading Tag লেখার সঠিক নিয়ম

  • ​​পেইজ এর টাইটেল এ অবশ্যই H1 Heading Tag ব্যবহার করা উচিৎ।  ​
  • একটি পেইজ এ H1 ট্যাগ একবারই ব্যবহার করা ভাল।  
  • আপনার পেইজ এ কন্টেন্ট এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ Heading গুলিকে H2 / H3 ট্যাগ এ করা ভালো।
  • এ ক্ষেত্রে H2 / H3 ট্যাগ একের অধিক বার ব্যবহার করা যেতে পারে। 
Heading Tag Example

​Good ​Heading Tag Example

​৬​

​ইন্টার্নাল লিংক / এক্সটার্নাল লিংক

​আপনি যখন কোনো ব্লগ লিখবেন তখন সেখানে ইন্টার্নাল এবং এক্সটার্নাল ২ ধরনের লিংক ই থাকা প্রয়োজন। আমার প্রতিটা ব্লগ পোষ্ট খেয়াল করলেই দেখতে পারবেন ইন্টার্নাল লিংকের পাশাপাশি আমি যথেস্ট পরিমানে এক্সটার্নাল লিংকিংও করে থাকি।

​লিংক করার সঠিক নিয়ম

  • ​​লিংক করার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন Anchor Text এর সাথে Destination পেইজ এর কন্টেন্ট এর সদৃশ থাকে।
  • ​ইন্টার্নাল লিংক এর ক্ষেত্রে  লিংক Attribute, Do-Follow এবং এক্সটার্নাল লিংক এর ক্ষেত্রে  লিংক Attribute, No-Follow রাখা ভালো। যাদের এই কথা গুলি বুঝতে কষ্ট হচ্ছে তারা আমার  ব্যাকলিংক (Backlink) কি এই পোষ্টটি আগে পড়ে নিন।

​৭​

​মোবাইল ফ্রেন্ডলি ডিজাইন না থাকা

ওয়েবসাইট মোবাইলের জন্য অপটিমাইজ করাটা এখন অন্যতম গুরুত্বপূর্ন একটি র‌্যাকিং ফ্যাক্টর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এর পিছনে কারন হলো, একটা সময় ছিলো যখন গুগল ডেক্সপট এবং মোবাইল ভার্সন, ২টার জন্য ওয়েবপেজ ২বার ইনডেক্স করতো। কিন্ত গুগল একটি ঘোষনার মাধ্যমে জানিয়েছে এখন থেকে তারা শুধু মোবাইলের জন্যই ওয়েবপেজ ইনডেক্স করবে যার নাম Mobile First Indexing এবং সেখান থেকেই ডেক্সটপ ভিউয়ের জন্য যাবে। এখন আপনার ওয়েবসাইট যদি মোবাইল অপটিমাইজ না করা হয় তাহলে এটি  আপনার ওয়েবাসইটের র‌্যাকিং এর জন্য অনেক বড় একটি নেগেটিভ সাইন।

Google এর মতে ৫৮% সার্চ আসে মোবাইল থেকে, সুতরাং আপনার ওয়েবসাইট অবশ্যই Mobile Friendly হতে হবে।

আপনার ওয়েবসাইট টি মোবাইল ফ্রেন্ডলি কি না এটি আপনি নিজেই চেক করতে পারেন। নিচের লিঙ্ক এ ক্লিক করে আপনার সাইট টি চেক করুন।
Google Mobile Friendly Test

Khan IT - Mobile Friendly Test

​৮​

ধীর গতির ​পেজ লোডিং স্পিড

​আমরা সবাই জানি ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড যত ভালো তা ওই ওয়েবাসইটের জন্য তত ভালো। আমি এর আগে একটি পোষ্টে বলেছি কোনো ওয়েবাসইটে ক্লিক করার পর ৩ সেকেন্ডের মধ্যে সাইট ওপেন না হলে ১০ জনের মধ্যে ৭জন ভিজিটরই ব্যাক বাটনে প্রেস করেন। অর্থাৎ, ১০ জনের ৭জন ওই ওয়েবাসইট ভিজিট করেন না। যার ফলে পুরো ওয়েবসাইটের বাউন্স রেট অনেক বেড়ে যায়। আর বাউন্স রেট খুব বেশি বেড়ে গেলে ওয়েবসাইটের পেনাল্টি খাওয়ার বা র‌্যাংক হারানোর সম্ভাবনা থাকে।

Google এর মতে ৫৩% ইউজার মোবাইল এ আপনার ওয়েবসাইট থেকে বের হয়ে যায়, যদি পেইজ টি লোড হতে ৩ সেকেন্ড এর বেশী সময় লাগে।  সুতরাং আপনার ওয়েবসাইট এর লোডিং স্পিড অবশ্যই দ্রুত হতে হবে।

আপনার ওয়েবসাইট এর লোডিং স্পিড কত জানতে  নিচের লিঙ্ক এ ক্লিক করে আপনার সাইট টি চেক করুন।
বোনাস 

নিম্নমানের কন্টেন্ট 

অনলাইন মার্কেটিং এর যুগে আসার পর যে কথাটা আমরা সবথেকে বেশিবার শুনেছি তা হলো “Content is King” হ্যা, এটা একদম ই সত্যি কথা যে কোনো ওয়েবসাইটে কন্টেন্ট সবসময় গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করে থাকে। কিন্ত গুগল ইদানিং থিন কন্টেন্ট এর জন্য ওয়েবসাইটকে পেনাল্টি দিচ্ছে।  থিন কন্টেন্ট বলতে এখানে বোঝানো হচ্ছে ছোট/কম তথ্য সম্বলিত কন্টেন্ট। কোনো ওয়েবপেজে ১০০০ওয়ার্ডের কন্টেন্ট কে স্টার্ন্ডার্ড হিসেবে ধরা হয়।
content-is-king
গুগল সব সময় চায় আপনার কন্টেন্ট যেনো ইনফরমেটিভ হয় এবং এটা পড়ে যেনো মানুষ কিছু শিখতে পারে। এখন আপনার ওয়বসাইটের সব পেজ ই যদি ১৫০-৩০০ ওয়ার্ডের হয় তাহলে বোঝাই যাচ্ছে এখন থেকে রিডার খুব বেশি কিছু শিখতে পারবে না। তাই ইদানিং থিন কন্টেন্ট এর জন্য গুগলের পেনাল্টি খুব বেশি দেখা যাচ্ছে।
​Brian Dean, owner of Backlinko​ এর মতে, গুগল এর প্রথম পেইজ এ যে ওয়েবসাইট গুলি র‌্যাংক করে তাদের পেইজ এর  গড় ওয়ার্ড সংখ্যা ১৮৯০-২০০০। 

তবে আপনাকে কিন্তু অফ-পেজ এসইও এর কথা ভুলে গেলে চলবে না। কারন অনপেজ করার পর আপনার দরকার হবে সঠিক Off-Page SEO টেকনিক, যা আপনার সাইটকে ভালো মানের ব্যাকলিংক পেতে সাহায্য করবে এবং সার্চ রেজাল্ট পেজে আপনার সাইটের র‌্যাংকিং আরো ভালো হবে।

​আশাকরি ​On-Page SEO Miskate নিয়ে আজকের লেখাটি আপনাদের ভালো লেগেছে।  লেখাটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়া তে শেয়ার করতে ভুলবেন না। এবং অবশ্যই আশা করবো কমেন্টের মাধ্যমে আপনার মতামত জানাবেন। খুব শীঘ্রই নতুন কোনো টপিক নিয়ে কথা বলবো আপনাদের সাথে। ধন্যবাদ

The post On-Page SEO এর ৮ টি মারাত্মক ভুল – ওয়েবসাইট হারাচ্ছে র‌্যাংক appeared first on মো: ফারুক খাঁন.

]]>
https://www.mdfarukkhan.com/bangla/on-page-seo-mistake/feed/ 8